ডিজিটাল মার্কেটিং কি? ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের ধারণা ও উপায়

আমরা বর্তমান পৃথিবীতে ডিজিটাল প্রযুক্তির মাঝে বসবাস করছি। সেদিক থেকে ভাবলে আমাদের প্রাত্যহিক জীবনের সকল কিছুতে একটা ডিজিটাল ছোঁয়া বা প্রযুক্তির ছোঁয়া লেগে থাকে। তাহলে আমাদের কর্মকান্ড বা ব্যাবসায়ে কেনো থাকবেনা? বর্তমান কম্পিটিশনের যুগে ব্যাবসায়ের কম্পিটিশনে নিজের ব্যাবসায় প্রতিষ্ঠানটিকে এগিয়ে রাখতে হলে আমাদের অবশ্যই প্রবেশ করতে হবে ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের দুনিয়াতে। তাছাড়া ডিজিটাল মার্কেটিং তুলনামূলক কম খরচেই করা সম্ভব। Digital Marketing বা Internet Marketing বলতে আমরা এক কথায় বলতে পারি ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যাবহার করে কোনো প্রডাক্ট বা সার্ভিসের মার্কেটিং করা। এখানে মোবাইলের টেক্সট মেসেজিং, মোবাইল এপ্লিকেশন থেকে বিজ্ঞাপন, ইমেইলের সাহায্যে বিজ্ঞাপন, ইলেক্ট্রনিক বিলবোর্ড, টিভি আর রেডিও মাধ্যমও অন্তর্ভুক্ত আছে।

ইন্টারনেটের সহজলভ্যতার কারণে দিন দিন এনালগ মার্কেটিং এর চেয়ে ডিজিটাল মার্কেটিং বেশি কার্যকরী হয়ে উঠছে। মানুষ দিন দিন যত বেশি প্রযুক্তির দিকে ঝুকে পরছে, ইন্টারনেট মার্কেটিং এর ক্ষেত্র তত বেশি বৃদ্ধি পাচ্ছে।

যুগের সাথে তাল মিলিয়ে আমাদের ইন্টারনেট সেবার সহজলভ্যতার কারণে মানুষ এখন এনালগ মার্কেটিং আর থেকে ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের প্রতি বেশি আগ্রহী হচ্ছে। এক্ষেত্রে সুবিধা হচ্ছে, মানুষ দিনের পর দিন যতটাই তথ্য ও প্রযুক্তির উন্নয়নের দিকে অগ্রসর হচ্ছে ততটাই ইন্টারনেট মার্কেটিং বা ডিজিটাল মার্কেটিং এর সম্ভাবনা এবং ক্ষেত্র দুটাই বৃদ্ধি পাচ্ছে।

 

 

ইন্টারনেটের সহজলভ্যতার কারণে দিন দিন এনালগ মার্কেটিং এর চেয়ে ডিজিটাল মার্কেটিং বেশি কার্যকরী হয়ে উঠছে। মানুষ দিন দিন যত বেশি প্রযুক্তির দিকে ঝুকে পরছে, ইন্টারনেট মার্কেটিং এর ক্ষেত্র তত বেশি বৃদ্ধি পাচ্ছে।
digital marketing idea. marketrocker. what is digital marketing

 

 

তাছাড়া ডিজিটাল মার্কেটিং মাত্রই এনালগ মার্কেটিং এর থেকে অনেক কম সময়ে দ্রুত ফল প্রদান করে আর খরচও সাশ্রয় করে। ধরি এনালগ মার্কেটিংয়ের ক্ষেত্রে ৫,০০০ টাকায় ১০,০০০ লিফলেট বানিয়ে ১০,০০০ মানুষের কাছে পৌঁছানো সম্ভব। কিন্তু একই খরচে ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের সাহায্যে প্রায় চার থেকে পাঁচগুণ বেশি মানুষের কাছে পৌঁছানো সম্ভব।

 

Internet Marketing বা Digital Marketing এর ধরনসমূহঃ

ডিজিটাল মার্কেটিং একটা বিশাল ক্ষেত্র। যতই মানুষ নতুন নতুন টেকনোলজি আবিস্কার করছে ততই ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের ক্ষেত্র বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের প্রকারভেদ নির্দিস্ট করে বলা মুশকিল অবশ্যই! তবে নিচে এর প্রধান কিছু মাধ্যমগুলোর সংক্ষিপ্ত ধারণা দিচ্ছি-

  • SEO (Search Engine Optimization)
  • SEM (Search Engine Marketing) Google AdWords
  • SMM (Social Media Marketing)
  • Email Marketing
  • Video Marketing (Interactive Marketing)
  • Content Marketing
  • Digital Display Ad
  • Audience Retargeting (Remarketing)
  • Mobile marketing
  • Affiliate Programs
  • Viral Marketing
  • Digital Media (Info graphic)
  • Reciprocal Marketing

 

SEO (Search Engine Optimization)

ডিজিটাল মার্কেটারদের সবচেয়ে জনপ্রিয় আর পছন্দের বিষয় কিন্তু SEO বা Search Engine Optimization. তার যথাযথ কারনও আছে। কোনো ওয়েবসাইট সার্চ ইঞ্জিনে অপটিমাইজ করা হলে তার সাহায্যে লক্ষ লক্ষ ভিজিটর আনা সম্ভব।

 

SEM (Search Engine Marketing) Google AdWords

এর একটা দৃষ্টান্ত হচ্ছে গুগল এডওয়ার্ডস। আপনি সার্চ ইঞ্জিনগুলোর সাহায্য নিয়ে পেইড ক্যাম্পেইন করলে বা পিপিসি করলে তা SEM অন্তর্ভুক্ত।

 

SMM (Social Media Marketing)

সোশ্যাল নেটয়ার্কগুলোতে যেমন গুগলে, লিঙ্কডইন, ফেসবুকে পেজ গ্রুপ তৈরি করে কমুনিকেটিভ মার্কেটিং করা।

 

Email Marketing

ইমেইল মার্কেটিং বুঝার আগে আমাদের বুঝতে হবে মার্কেটিং কি। মার্কেটিং বলতে আমরা সাধারণভাবে বুঝি কোনো প্রডাক্ট বা সার্ভিসের প্রোমোশনের জন্য আমরা যে যে কাজগুলো করে থাকি। এবং এই কাজগুলো করার জন্য আমরা বিভিন্ন মাধ্যমের সাহায্য নিয়ে থাকি যেমন টিভি, নিউজপেপার, লিফলেট বিলি, ব্যানার সহ নানান কিছু। সেরকমই ইমেইলের মাধ্যমে কোনো পণ্য বা সেবার যে প্রচারণা করা হয় সেটাই ইমেইল মার্কেটিং বলি।

 

Video Marketing (Interactive Marketing)

আমাদের ওয়েবসাইট গুগলের কাছে তখনই গুরুত্বপূর্ণ হয় যখন গুগল দেখে যে আমাদের সাইটের ভিজিটরের সংখ্যা বাড়ছে এবং তারা যথেষ্ট সময় দিয়ে ভিজিট করছে। সেক্ষেত্রে আমরা যদি আমাদের ওয়েবসাইটের সাথে সঙ্গতিপূর্ন একটা আকর্ষনীয় ভিডিও তৈরি করে নিজেদের সাইট সহ অন্যান্য ভিডিও শেয়ারিং ওয়েবসাইটে যেমন YouTube.com, DailyMotion.com, Vimeo.com তে শেয়ার করি সেক্ষেত্রে ভিডিওটি অনেক মানুষ দেখবে এবং আরো ট্রাফিক বা ভিজিটর আসতে থাকবে।

5

Comments

comments